সি-উইডের গুণে Wardah Seaweed Balancing Facial Wash এবং Cleansing Micellar Water

প্রাচীন ‘সুপার-ফুড’ হিসাবে সি-উইড বিশ্ববিখ্যাত। সি-উইড মূলত প্রাকৃতিক অ্যান্টি-ভাইরাল ও  অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল এজেন্ট হিসাবে কাজ করে যা সুস্বাস্থ্য বজায় রাখতে কার্যকর। স্বাস্থ্যের জন্য সি-উইড যে কতটা উপকারী তা বলে শেষ করা যাবেনা!  সি-উইড এর আয়োডিন, ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, লোহা, ভিটামিন এ, বি এবং সি, প্রোটিন, ফাইবার, আলফা লিনোলিক এসিড এবং আরও অনেকগুলি খনিজ সম্পদ একাধারে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখে, কোলেস্টেরল ও রক্তচাপের  মাত্রা স্থির করে এবং হজমে সহায়তা করে। সে কারণেই তো স্বাস্থ্য সচেতন সকলের ডায়েট চার্টে সিউইড সালাদ থাকে সবচেয়ে উপরেই।

তবে রূপচর্চার জন্য সি-উইড না খেয়েও এর ম্যাজিকাল ইফেক্টস আপনি লক্ষ্য করতে পারবেন শুধু স্কিনে এপ্লাই করেই। আর সে কারণেইতো সি-উইড সমৃদ্ধ Wardah – Seaweed Balancing Facial Wash এবং  Wardah – Seaweed Cleansing Micellar Water। ত্বক ভিতর এবং বাহির থেকে হেলদি এবং প্রটেক্টেড রাখুন এখন সিউইডের গুণে!

Wardah – Seaweed Balancing Facial Wash

প্রতিদিনের টায়ার্ডনেস, আবহাওয়ার  ডার্ট ও পলিউশন ত্বকের সতেজতা ম্লান করে দেয়। তাই প্রতিদিন ধুলাবালি ও প্রতিকূল আবহাওয়ার জন্য আমাদের ত্বক নিয়মিত পরিষ্কার করা দরকার। সেই সাথে আমাদের ত্বকের Ph Balance ( power of hydrogen ) ঠিক রাখাও অত্যন্ত জরুরি। এখন সেসব কিছুই সম্ভব  Wardah এর Seaweed Balancing Facial Wash এর মাধ্যমে। ফেসওয়াশটি একদম কোমলভাবে ত্বকের ভিতর থেকে ময়লা পরিষ্কার করে ত্বককে রাখে সুস্থ, উজ্জ্বল ও প্রাণবন্ত। সুপারফুড সি-উইড এর নির্জাস হতে সম্পপূর্র্ণ হালাল উপায়ে তৈরী এই ফেসওয়াশটি যেকোনো স্কিন টাইপে ব্যবহার করা যাবে। এর মাইল্ড ইনগ্রেডিয়েন্টস  ত্বকের কোনো ক্ষতি করেনা, চেহারায় এনে দেয় ইন্সট্যান্ট গ্লো। তাই 60 ml এর হ্যান্ডি এই ফেসওয়াশটি রাখতে পারেন আপনার হ্যান্ডব্যাগেই যেন ত্বক পরিষ্কার করতে পারেন যখন তখন!


 Wardah Seaweed Balancing Facial Wash


উপকারিতা

– মুখের অতিরিক্ত তেল ও জমে থাকা  ময়লা দূর করে

– স্পট ফেড করে

– সঠিক ব্যালেন্স বজায় রাখে

– স্কিন থাকে ফ্রেশ এবং সফ্ট

– সি-উইড এজিং প্রতিরোধ করে

– একনে দূর করে  

Seaweed Cleansing Micellar Water

Micellar Water কী এ সম্পর্কে আমাদের অনেকেরই স্পষ্ট ধারণা নেই। অনেকেই টোনার ভেবে Micellar Water ভুলভাবে ব্যবহার করি যা ত্বকের কোনো উপকারেই আসে না। Micellar Water মূলত এক ধরণের  ক্লিনজিং ওয়াটার যা ত্বক পরিষ্কার করতে কাজ করে দারুণভাবে। Wardah এর Seaweed Cleansing Micellar Water সি-উইডের গুনাগুন সমৃদ্ধ এবং সম্পূর্র্ণ হালাল ইনগ্রেডিয়েন্টস দিয়ে তৈরি। তাই আপনার ত্বক ক্লিন তো হবেই, সেইসাথে পাবেন সি-উইডের ম্যাজিকাল সব গুণাগুণ স্কিনকে স্বাস্থ্যোজ্জ্বল রাখার জন্য।


সি-উইডের গুনাগুন সমৃদ্ধ Wardah
Seaweed Cleansing Micellar Water

ব্যবহার – কটন বলে পরিমাণমতো Micellar Water নিয়ে তা ফেসে ম্যাসাজ করুন।মেকআপ রিমুভ করতে চাইলে সরাসরি মেকআপের উপর ম্যাসাজ করে নিতে পারবেন। ডার্র্ট  কিংবা মেকআপ পরিষ্কার হয়ে কটন বলে উঠে নিমিষেই।

উপকারিতা

– ত্বকের ডার্র্ট এবং এক্সেস অয়েল দূর করে

– মেকআপ রিমুভার হিসাবে কাজ করে

– মাত্র একবার সোয়াপ করেই ত্বক হয় পরিষ্কার ও প্রাণবন্ত

– প্রতিদিন ব্যবহার করা যায়

– লাইট এবং নন-স্টিকি ফর্র্মুলা, তাই ব্যবহারের পর তেল চিটচিটে লাগেনা  

– সি-উইড ড্যামেজড স্কিন প্রতিরোধ করে

তাহলে, সি-উইড এর চমকপ্রদ গুণাগুণ দিয়ে ত্বক থাকুক ফ্রেশ ও পরিষ্কার! ত্বকের জন্য এর চেয়ে বড় উপহার আর কি হতে পারে বলুন?

Leave a Reply