গ্রিন টি দিয়ে বিউটি হ্যাকস!

গ্রিন টি কে আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য প্রকৃতির এক আশীর্বাদ বলা চলে। সুস্থ দেহ, সুন্দর ত্বক ও ওজন কমাতে গ্রিন টি অনেকেই পান করে থাকেন। তবে প্রতিবার গ্রিন টি বানানোর পর টি-ব্যাগটি যদি আপনি ফেলে দেন, তাহলে সবচেয়ে বড় ভুল আপনি এখানেই করছেন। কারণ ব্যবহৃত টি ব্যাগটিতেও থাকে অফুরন্ত গুনাগুণ যা আপনি ঘরে বসেই লাভ করতে পারবেন অতি সহজে। আজকের ব্লগটি তাই এমনই কিছু ঝটপট গ্রিন টি হ্যাকস নিয়ে!

১। চোখের যত্নে –সারাদিন কম্পিউটার আর ফোনের স্ক্রিনে তাকিয়ে থাকতে থাকতে আমাদের চোখ থাকে সবচেয়ে ক্লান্ত। চোখের এই ক্লান্তভাব দূর করুন গ্রিন টি ব্যাগ দিয়ে। গ্রিন টি তে আছে ট্যানিন ও অ্যাস্ট্রিনজেন্ট উপাদান যা সংবেদনশীল ত্বকের জন্য খুবই ভালো। যেহেতু আমাদের সবারই চোখের চারদি অন্যান্য স্কিনের চেয়ে একটু বেশি সেনসিটিভ হয়, তাই চোখের যত্নে গ্রিন টি ব্যবহার করতে পারবেন নির্দিধায়। এজন্য গ্রিন টি তৈরির পর টি ব্যাগটি ফেলে দেবেন না। এটিকে কিছুক্ষণ ফ্রিজে রেখে ঠাণ্ডা করুন তারপর আপনার চোখের ওপর ১০ মিনিট দিয়ে রাখুন। এতে চোখের চারপাশের পাফিনেস ও রিংকেল দূর হবে, ত্বক টান টান হবে এবং একটি ইন্সট্যান্ট ফ্রেশভাব আসবে।

২। ঘরোয়া গ্রিন টি স্ক্রাব –ড্রাই গ্রিন টির পাতা দিয়ে খুব সহজেই বানিয়ে ফেলতে পারেন ফেস এবং বডি স্ক্রাব। গ্রিন টি এবং ব্রাউন সুগার মধু কিংবা অলিভ অয়েলের সাথে মিক্স করে স্ক্রাব হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। গ্রিন টি তে আছে অনেক ধরনের অ্যন্টি-অক্সিডেন্ট যার ফলে ত্বকের ড্যামেজ দূর করতে, এজিং প্রতিরোধে ও ব্রাইটার কমপ্লেকশান দিতে দারুন ভাবে কাজ করে গ্রিন টি স্ক্রাব। স্ক্রাবিং এর ফলে লোমকুপের ময়লা এবং মৃত কোষ দূর হয়ে ত্বক হবে নরম ও মসৃণ।

৩। দুর্গন্ধের বিড়ম্বনা – গ্রিন টি এক ধরনের প্রাকৃতিক ডিওড্রেন্ট। ঘামের দুর্গন্ধ দূর করতে তাই ব্যবহার করতে পারেন গ্রিন টি। এর অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল গুণাগুণের কারণে  গোসলের পর ঠান্ডা গ্রিন টি আন্ডারআর্মে লাগালে দুর্গন্ধ দূর হয়। ঠিক একইভাবে পায়ের দুর্গন্ধ দূর করতেও এই পদ্ধতি অনুসরণ করলে ভালো ফল পাওয়া যায়।

৪। রোদে পোড়া ত্বকের যত্নে – এই গরমে রোদের প্রখর তাপে প্রতিদিন আমাদের সানবার্নের সম্মুখীন হতে হয়। কিন্তু ভয় নেই, রোদে পোড়া ত্বকের যত্নও করবে গ্রিন টি। গ্রিন টি তে আছে ট্যানিন যা তাৎক্ষনিক সানবার্ন দূর করতে কাজ করে। এর জন্য গ্রিন টি বানিয়ে তা আইস কিউব করে নিতে হবে। রোদে পোড়া ত্বকে আইস কিউব রাব করলে পাওয়া যাবে উপকার।

৫। চুলের যত্নে – না ভুল পড়ছেন না! গ্রিন টির উপকারী ক্যাফেইন ও অ্যান্টি-অক্সিডেন্টের কারণে চুলের যত্নেও এই বহুগুণী উপাদানটি ব্যবহার করতে পারবেন। এর জন্য গ্রিন টি তৈরি করে তা ঠান্ডা করুন। এর মধ্যে মধু ও নারকেল তেল যোগ করে চুল ও স্ক্যাল্পে ম্যাসাজ করে নিন। ২০-৩০ মিনিট পর ধুয়ে নিলেই পরিবর্তন বুঝতে পারবেন। চুল ঝলমলে হওয়ার পাশাপাশি চুলকে হবে এক্সট্রা সফট এবং সিল্কি।

তাই, গ্রিন টির গুণাগুণে দিনভর প্রাণবন্ত থাকতে কাজে লাগাতে পারেন এসব  খুবই সহজ ও ঘরোয়া বিউটি টিপস।

আরও বিউটি হ্যাকস সম্পর্কে জানতে পড়ুন – https://blog.stylinecollection.com/cosmetics/beauty-hacks/

1 Comment