সুস্থ থাকুন রমজানে

চলে এসেছে পবিত্রতার মাস মাহে রমজান। রমজানে সারাদিন রোজা রাখার ফলে দিনশেষে প্রচুর ক্লান্ত লাগে। আর এ বছর রমজানে কাঠফাটা রোদ ও গরমে ডিহাইড্রেশানের ঝুঁকি বেড়ে গিয়েছে আরও। তাই একজন রোজাদারের এ সময় উচিত কিছু টিপস মেনে চলা। যেমন –

  • ইফতারে ট্রেডিশনাল ভাজা-পোড়া খাবার যতটা সম্ভব এড়িয়ে চলুন। ইফতার শুরু করুন খেজুর এবং গরম এক কাপ স্যুপ দিয়ে। ভাজাপোড়া খাবারের বদলে বেশি করে ফলমূল, সালাদ ইত্যাদি সহজপাচ্য ও পুষ্টিকর খাবার খেতে হবে। মনে রাখতে হবে অধিক ক্যালরিযুক্ত খাবার নয় বরং পুষ্টিকর খাবার অনেক বেশি দরকারি।
  • পানি খেতে হবে প্রচুর। ইফতারের সময় থেকে শুরু করে সেহরি পর্যন্ত সাথে এক বোতল পানি রাখুন যেন সারাদিন রোজা রাখার ফলে কোনো ভাবেই শরীরে পানিশূন্যতা তৈরি না হয়। বিভিন্ন ফলের জুস এবং ডাবের পানিও খেতে পারেন বেশি বেশি।
  • অনেকেই আলসেমির কারণে সেহেরি না করে রোজা রাখেন যা মোটেই উচিত নয়। সেহেরিতে সঠিক খাদ্যতালিকাই পরবর্তী সময়ে শরীরকে সবল এবং কর্মক্ষম রাখে। তাই অবশ্যই সেহেরি বাদ দেওয়া যাবেনা এবং সেহেরিতে রাখতে হবে প্রোটিন জাতীয় খাদ্য বেশি।
  • রমজানে রাত জাগার জন্য অনেকেই ক্যাফেইনের উপর নির্ভরশীল হয়ে যান। তবে এ সময়ে উচিত যতটা সম্ভব কম কফি পান করা।
  • সারাদিন রোজা রাখার ফলে এ সময় দেহে প্রচুর ডিহাইড্রেশন হয়, যা ত্বকের জন্য খারাপ। তাই এই সময়ে ত্বক হাইড্রেটেড রাখতে ময়েশ্চারাইজার বাদ দেওয়া যাবেনা কোনো ভাবেই! ঠোঁটের আদ্রতা বজায় রাখতেও প্রতিবার মুখ ধোয়ার পর লিপবাম ব্যবহার করতে ভুলবেন না যেন!

এছাড়াও, ত্বক ও চুলের সম্পূর্ন সুস্থতা বজায় রাখতে রমজানে হেয়ার কেয়ার ও স্কিন কেয়ারের প্রোডাক্টগুলো হওয়া উচিত হালাল এবং কেমিক্যাল ফ্রি। ১০+ দেশি/বিদেশি ব্র্যান্ডের হালাল এবং অরগ্যানিক কসমেটিকসের কালেকশন দেখতে পারেন আমাদের ওয়েবসাইটে –http://bit.ly/styline_cosmetics