BARLEY: THE WONDER GRAIN!

কুরবানীর ঈদের মাংস খেয়ে হঠাৎ বেড়ে যাওয়া ওজন যদি আপনাকে দুশ্চিন্তায় ফেলে দেয়, তাহলে এই লেখাটি পড়ার আগে আপনি কিছুটা রিলাক্স হয়ে বসতে পারেন। কারণ এতে থাকছে এমন এক ওয়ান্ডার গ্রেইনের কথা যা আপনার বাড়তি ওজন কমাতে সাহায্য করবে এবং তার সাথে বোনাস হিসেবে পাবেন আরো কিছু হেলথি বেনিফিটসও।    

হুট্ করে মোটা হয়ে যাওয়ার কারণ বের করতে পারছেন না বুঝি ? তাহলে জেনে নিন, ওজন নিয়ন্ত্রনে চাই পরিমিত পরিমানে শর্করা, ফাইবার, প্রোটিন এবং স্বাস্থ্যকর ফ্যাট গ্রহণ। একজন প্রাপ্তবয়স্কদের প্রতিদিন ২৫ থেকে ৩০ গ্রাম ফাইবার গ্রহণ করা প্রয়োজন। আর এটা কিন্তু মোটেও আমার কথা নয়, নিউট্রিশনিস্ট এবং ডায়েটিশিয়ানদেরই পরামর্শ।  

আজকে বলছি বার্লির কথা যা ফাইবার সমৃদ্ধ কার্বোহাইড্রেট এবং ভাত/গমের বিকল্প হিসাবে ব্যবহার করা হয়। এটি আপনাকে সাহায্য করবে অতিরিক্ত ওজন ঝরিয়ে ফেলতে। ভাত বা গমের বদলে বার্লি খাওয়ার অভ্যাস কিভাবে সাহায্য করবে আপনাকে ওজন কমাতে এবং ফিট থাকতে চলুন জেনে নেই- 

১. ফাইবার ভরপুর :

বার্লিতে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার থাকে আপনার হঠাৎ বেড়ে যাওয়া ওজন কমাতে সহায়তা করে।  এটা সম্ভব হয় আংশিকভাবে বিভিন্ন ধরণের প্রয়োজনীয় অ্যামিনো অ্যাসিডের কারণে এবং আংশিকভাবে তার ফাইবার সামগ্রীর কারণে। বার্লি আপনার রক্তে শর্করা এবং চিনির মাত্রা ব্যালান্স করতে সাহায্য করে, ফলে দ্রুত ওজন কমে। 

অন্যান্য শস্যের তুলনায় বার্লি কম ক্যালোরিযুক্ত তাই আপনি ক্যালোরি কম কনজিউম করে স্বাস্থ্যকর উপায়ে ওজন কমাতে পারবেন।

২. কোষ্ঠকাঠিন্যে  ভূমিকা:

কোরবানির ঈদে কোষ্ঠকাঠিন্য অতি পরিচিত একটি ব্যাপার যা সবার জন্যেই অস্বস্থিকর। বার্লি কিন্তু এব্যাপারেও আছে আপনাকে সাহায্য করতে আর আপনার অভ্যন্তরীণ স্বাস্থ্যকে ভালো রাখতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞাবদ্ধ  । আবারও এর উচ্চ ফাইবারেরই গুরুত্তপুর্ণ ভূমিকা রাখছে এখানে। এই ফাইবারগুলি আপনার অভ্যন্তরীণ অন্ত্রের গতিবেগকে স্বাভাবিক রাখে এবং আপনার কোষ্ঠকাঠিন্যের সম্ভাবনা হ্রাস করে।

৩. কোলেস্টেরল এবং রক্তের শর্করা ব্যালেন্স:

বার্লির একটি বড় সুবিধা হল, এতে রয়েছে উচ্চ পরিমাণ বিটা-গ্লুকান ফাইবার। বিটা গ্লুকান হল এমন এক ডায়েটারি ফাইবার যা কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে এবং হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়। এছাড়াও রক্তে শর্করার পরিমান নিয়ন্ত্রণ করতে বিটা-গ্লুকান অনেক কার্যকরী ভূমিকা রাখে। নিউট্রিশনিস্ট এবং ডায়েটিশিয়ানদের মতে, আপনি যদি প্রতিদিন ৩.৫ গ্রাম বিটা-গ্লুকান খাবারের তালিকায় যোগ করেন তাহলে এটি আপনার রক্তের কোলেস্টেরলকে উল্লেখযোগ্য আকারে কমাতে সাহায্য করবে। 

এবার কিছুটা আশ্বস্ত করতে পেরেছি তো আপনাকে? আশা করছি স্বাস্থ্য সচেতন আপনি আপাতত টেনশনটা কমিয়ে খাওয়ার তালিকায় আজ থেকে বার্লি যোগ করে নিবেন, যা আপনাকে সহায়তা করবে ওজন কমিয়ে সুস্থ রাখতে।

হেলদি ফুড লাইনে আমরা নিয়ে এসেছি বেশ কিছু বার্লি জাতীয় খাদ্য, দেখে নিতে পারেন এক-নজরে – https://styl.ws/barley